ঢাকা, শুক্রবার, ৩০ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ১৪ ডিসেম্বর ২০১৮
Risingbd
সর্বশেষ:

প্রায় ৪ হাজার কোটি টাকার ইভিএম প্রকল্প অনুমোদন

হাসিবুল ইসলাম : রাইজিংবিডি ডট কম
 
     
প্রকাশ: ২০১৮-০৯-১৮ ২:৩১:০২ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-০৯-১৮ ২:৩১:০২ পিএম

নিজস্ব প্রতিবেদক : বহুল আলোচিত ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) কেনার প্রকল্প জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভায় অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার রাজধানীর শেরেবাংলা নগরে এনইসি সম্মেলন কক্ষে একনেক চেয়ারপারসন ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে একনেক সভায় প্রকল্পটি অনুমোদন দেওয়া হয়।

একনেক সভা শেষে প্রকল্প নিয়ে সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল।

পরিকল্পনামন্ত্রী জানান, নির্বাচন ব্যবস্থায় অধিকতর স্বচ্ছতা আনতে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) কেনা, সংরক্ষণ ও ব্যবহার’ শীর্ষক প্রকল্পটি বাস্তবায়নে খরচ ধরা হয়েছে ৩ হাজার ৮২৫ কোটি ৩৪ লাখ টাকা। সম্পূর্ণ সরকারি অর্থায়নে প্রকল্পটি বাস্তবায়ন হবে।

তিনি বলেন, এই প্রকল্পের আওতায় দেশব্যাপী বিভিন্ন নির্বাচনে ইভিএমের মাধ্যমে ভোটগ্রহণের লক্ষ্যে ক্রমান্বয়ে ১ লাখ ৫০ হাজার ইভিএম মেশিন কেনা, সংরক্ষণ ও ব্যবহার করা হবে। এছাড়া নির্বাচন সংশ্লিষ্ট সব জনবলের জন্য ইভিএম ব্যবহার সংক্রান্ত প্রয়োজনীয় দক্ষতা বাড়াতে প্রশিক্ষণ আয়োজন, ইভিএমের মাধ্যমে ভোট দেওয়ার জন্য ভোটারদের জন্য সচেতনতামূলক কার্যক্রম গ্রহণ ও বাস্তবায়ন করা হবে।

পরিকল্পনা কমিশন সূত্র জানায়, এর আগে গত ১১ সেপ্টেম্বর ইভিএম প্রকল্পটি একনেকে উঠবে বলে জানিয়েছিলেন পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। কিন্তু তারপরও এটি একনেক ওঠা নিয়ে সংশয় ছিল। কেননা, সম্প্রতি অনুষ্ঠিত প্রকল্প মূল্যায়ন কমিটির (পিইসি) সভার সুপারিশগুলো পরিপালন করে তড়িঘড়ি সংশোধিত উন্নয়ন প্রকল্প (আরডিপিপি) পরিকল্পনা কমিশনে পাঠায় নির্বাচন কমিশন। কিন্তু সেটি মনপুত না হওয়ায় আবারও ফেরত পাঠানো হয় উন্নয়ন প্রকল্প প্রস্তাব (ডিপিপি)।

পরে নির্বাচন কমিশনের প্রকল্প সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা সোমবার দিনভর ব্যাপক তৎপরতা চালিয়ে অবশেষে একনেক উপস্থাপনের প্রাথমিক অনুমতি পেতে সক্ষম হন।

চলতি বছরের ডিসেম্বরের শেষ সপ্তাহে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ভোট গ্রহণের পরিকল্পনা নিয়ে এগুচ্ছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। এ ভোটে ইলেক্ট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) ব্যবহারের তোরজোড় শুরু হয়েছে ইসিতে। আগামী সংসদ ভোটে ইভিএম ব্যবহার করতে গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশ (আরপিও) আরপিও সংশোধনেরও উদ্যোগ নিয়েছে কমিশন। গত ৩০ আগস্ট কমিশন সভায় বিষয়টি অনুমোদন পায়। পরে তা ভেটিংয়ের জন্য আইন মন্ত্রণালয়ে পাঠায় ইসি। সংশোধিত আরপিও জাতীয় সংসদে পাস হলে আগামী একাদশ সংসদ ভোটে ইভিএম ব্যবহারের বাধা কেটে যাবে।

জাতীয় সংসদ ইভিএম ব্যবহার নিয়ে রাজনৈতিক দলগুলোর পরস্পর বিরোধী মত রয়েছে। নির্বাচন কমিশনের সঙ্গে নিবন্ধিত রাজনৈতিক দলগুলোর সংলাপে বিএনপিসহ বেশ কয়েকটি রাজনৈতিক দল জাতীয় নির্বাচনে ইভিএম ব্যবহারের বিরোধিতা করেছে। অন্যদিকে আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন মহাজোট ইভিএম ব্যবহারের পক্ষে মত দিয়েছে।




রাইজিংবিডি/ঢাকা/১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮/হাসিবুল/সাইফ 

Walton Laptop
 
     
Marcel
Walton AC